বাংলা ব্যাকরণ

বাক্য কাকে বলে? ও বাক্যের প্রকার ভেদ

sentence বা বাক্য কাকে বলে

যে সুবিন্যস্ত পদসমষ্টি দ্বারা কোন বিষয়ে বক্তার মনোভাব সম্পূর্ণ রূপে প্রকাশিত হয়, তাকে sentence বা বাক্য বলে।

ড. সুনীতিকুমার চট্টোপাধ্যায়ের মতে, যে পদ বা শব্দ সমষ্টি দ্বারা কোনো বিষয়ে বক্তার ভাব সম্পূর্ণরূপে প্রকটিত হয়, সেই পদ বা শব্দ সমষ্টিকে বাক্য বলে।

গঠন অনুসারে বাক্য কত প্রকার ও কি কি

গঠন অনুসারে বাক্য তিন প্রকার: যথা-

১। সরল

২। জটিল বা মিশ্র বাক্য

৩। যৌগিক বাক্য

সরল বাক্য কাকে বলে

সরল বাক্য:- যে বাক্যে একটি মাত্র উদ্দেশ্য ( কর্তা ) এবং একটি মাত্র সমাপিকা ক্রিয়া ( বিধেয়) থাকে তাকে সরল বাক্য বলে।

উদাহরণ:- মিথ্যা বলার জন্য তোমার পাপ হবে।

ভালো ছেলেরা শিক্ষকের আদেশ পালন করে।

জটিল বা মিশ্র বাক্য কাকে বলে

জটিল বা মিশ্র বাক্য:- যে বাক্যে একটি প্রধান খন্ড বাক্যের এক বা একাধিক আশ্রিত বাক্যে পরস্পর সাপেক্ষ ভাব ব্যবহৃত হয়, তাকে জটিল বা মিশ্র বাক্য বলে।

উদাহরণ:- যেহেতু তুমি মিথ্যা বলেছ, সেহেতু তোমার পাপ হবে।

যারা ভালো ছেলে, তারা শিক্ষকের আদেশ পালন করে।

যৌগিক বাক্য কাকে বলে

যৌগিক বাক্য:- পরস্পর নিরপেক্ষ দুই বা বহু  সরল বা জটিল বাক্যের সমবায়ে গঠিত একটি পূর্ণবাক্যকে যৌগিক বাক্য বলে।

উদাহরণ:- যে মোটা বটে, কিন্তু তার গায়ে শক্তি নেই।

সত্য কথা বলিনি, তাই বিপদে পড়েছি।

অর্থ অনুসারে বাক্য কত প্রকার ও কি কি

অর্থ অনুসারে বাক্য ৫ প্রকার যথা:-

১। বর্ণনাসূচক বাক্য

২। প্রশ্নসূচক বাক্য

৩। ইচ্ছাসূচক বাক্য

৪। অনুজ্ঞাসূচক বাক্য

৫। বিষ্ময়সূচক বাক্য

সার্থক বাক্যের বৈশিষ্ট্য বা বাক্যের গুণ

একটি সার্থক বাক্যে তিনটি গুণ বা বৈশিষ্ট্য থাকে। যথা:-

১। আকাঙ্ক্ষা

২। আসত্তি

৩। যোগ্যতা

১। আকাঙ্ক্ষা:- এক পদের পর অন্য পদ শোনার যে ইচ্ছা তাকে আকাঙ্ক্ষা বলে।

অথবা,

বাক্যের অর্থ ভালো ভাবে বোঝার জন্য যতগুলো পদের প্রয়োজন তার সব কটি যদি বাক্যে না থাকে এবং কোন এক বা একাদিক পদ অবশিষ্ট থাকে, তবে ওই অবশিষ্ট পদ শোনার ইচ্ছাকে বাক্যের আকাঙ্ক্ষা বলে।

ঢাকা বাংলাদেশের— তুমি আমাকে—

মনে আমাদের প্রশ্ন থেকে যায় ঢাকা বাংলাদেশের কী? তুমি আমাকে কী? আর্থাৎ আরো শোনার আকাঙ্খা পূর্ণ হলে বাক্যটি সম্পূর্ণ হতো।

২। আসত্তি:- বাক্যের অর্থ সঙ্গতি রক্ষার জন্য সুশৃঙ্খল পদ বিন্যাসকে আসত্তি বলে।

অথবা,

বাক্যের সম্পূর্ণ মনোভাব প্রকাশের জন্য বাক্যস্থিত পদগুলোর সঠিকভাবে সাজিয়ে লেখা বা বলার নামই আসত্তি।

মাওলানা আবদুল হামীদ খান মহান নেতা ছিলেন। ঢাকা বাংলাদেশের রাজধানী।

৩। যোগ্যতা:- বাক্যস্থিত পদ সমূহের অর্থগত ও ভাবগত মিলবন্ধনের নাম যোগ্যতা।

যোমন:- সূর্য পূর্ব দিকে উঠে, পাখিরা আকাশে ওড়ে।

একটি বাক্য প্রধানত কয়টি অংশ থাকে

একটি বাক্যে প্রধানত দুটি অংশ থাকে।

বাক্যে চেনার সহজ উপায়

জটিল বা মিশ্র বাক্য চেনার উপায়:-

বাক্যের মধ্যে সাপেক্ষ সর্বনাম অর্থাৎ যে-সে, যিনি-তিনি, যা-তা, যাহার-তাহার, যেমন-তেমন, যত-তত, যদি-তবু, যদিও-তবুও, যথাপি-তথাপি, হয়-নয়, আগে-পরে যেহেতু-সেহেতু প্রভৃতি যে কোন দুটি থাকলে জটিল বা মিশ্র বাক্য।

যেমন কর্ম তেমন ফল।

যদিও তার চুল পেকেছে তবুও তার বুদ্ধি পয় নি।

যৌগিক বাক্য চেনার উপায়:-

বাক্যের দুটি অংশ যদিও, এবং আর, কিন্তু, কিংবা, বরং, বা অথবা, অথচ, নতুবা, নচেৎ, তাই, তবে, তথাপি প্রভৃতি যে কোন একটি দ্বারা যুক্ত থাকে তাহলে যৌগিক বাক্য। যেমন:-

লোকটি গরিব কিন্তু সৎ।

সরল বাক্য চেনার উপায়:-

উপরের দুটি বৈশিষ্ট্যের কোনটিই না থেকে বাক্যের মধ্যে একটি কর্তা ও একটি সমাপিকা ক্রিয়া থাকে তাহলে সরল বাক্য।

সত্যবাদিকে সবাই ভালোবাসে।

এই বিভাগের আরো পোস্ট

বাংলা উচ্চারণের নিয়ম

admin

বিভিন্ন প্রতিযোগিতামূলক পরীক্ষায় বার বার আসা সমার্থক শব্দ

admin

পদ কাকে বলে। কত প্রকার ও কি কি ?

admin

অ ধ্বনি উচ্চারণের পাঁচটি নিয়ম

admin

এ ধ্বনি উচ্চারণের ৫টি নিয়ম উদাহরণসহ

admin

বাংলা ব্যাকরণ থেকে গুরুত্বপূর্ণ ৫০০+ বাগধারা

admin

Leave a Comment